ডিজিটাল মার্কেটিং এবং ক্রিয়েটিভিটি – পর্ব ০১

ডিজিটাল মার্কেটিং এবং ক্রিয়েটিভিটি – পর্ব ০১

ডিজিটাল মার্কেটিং কী?

ডিজিটাল বাংলাদেশ ও ডিজিটাল প্রযুক্তি জনপ্রিয় হওয়ার পর সর্বত্র ডিজিটাল শব্দটি ব্যবহারের প্রবণতা বৃদ্ধি পায়। তবে বাজারে যা কিছুকে ডিজিটাল দাবি করা হয়, তার সবকিছু ডিজিটাল না হলেও আইসিটি বেজড টেকনােলজিকে ডিজিটাল টেকনােলজি বলা যায় এমনকি ইন্টারনেট ও কম্পিউটার বেজড টেকনােলজির মূল ডিজিটাল টেকনােলজি থেকেই। সহজ ভাষায়, ডিজিটাল ডিভাইস, যেমন কম্পিউটার ও মােবাইল ফোন ব্যবহার করে যে মার্কেটিং করা হয়, সেটাই ডিজিটাল মার্কেটিং। অনলাইন বা ইন্টারনেটের মাধ্যমে যে মার্কেটিং করা হয়, সেটাও ডিজিটাল মার্কেটিং । সহজ অর্থে, ডিজিটাল প্রযুক্তি (ইন্টারনেট সেবা) ব্যবহার করে কোনাে পণ্য বা সেবার মার্কেটিং করাকে ডিজিটাল মার্কেটিং বলে। মূলত ক্রিয়েটিভিটির সবচেয়ে বেশি প্রয়ােগ করা যায় ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে।।

সােশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (Social Media Marketing) : ফেসবুক আর ইউটিউবে বিজ্ঞাপন দেখার বদৌলতে আমরা আজকাল সহজে বিষয়টি বুঝে থাকি। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টুইটারসহ বিভিন্ন সােশ্যাল মিডিয়ায় পণ্য বা সার্ভিসের প্রচার চালানাে হলাে সােশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং। সহজ কথায়, সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যম ব্যবহার করে যে মার্কেটিং করা হয়, সেটাই সােশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং। এতে অল্প খরচে ও স্বল্প সময়ে বহুসংখ্যক গ্রাহকের কাছে সহজে পণ্য বা সার্ভিসের প্রচার চালানাে সম্ভব। যদি কনটেন্ট সেই রকমের ক্রিয়েটিভ হয়। সােশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিংয়ে অনেক কিছুই মার্কেটার নিজে বেছে নিতে পারেন বা নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন এবং খুব দ্রুত মার্কেটিং বাস্তবায়ন করা যায় এমনকি ফলাফল কী, সেটাও সাথে সাথে।

জানা যায় বলে এই মাধ্যমটি ক্রমশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। আর ফেসবুকের বিজ্ঞাপন ও অফারগুলাে দেখলে বােঝা যায় প্রতিনিয়ত সৃজনশীলতা দিয়ে নিয়মভাঙার কসরত চলছে। পাশাপাশি একই রকম ও কপি পেস্ট কনটেন্টের যন্ত্রণাও কম নেই। তবে সামাজিক গণমাধ্যম বলে এখানে যে কোনো কিছুর যথেচ্ছ ব্যবহার হয়ে থাকে।

সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং (Search Engine Marketing) : এসইও আপনার মার্কেটিং ও ব্র্যান্ডিংয়ের একটা অংশ, যদি আপনি এর গুরুত্ব বুঝে থাকেন। গুগল, ইয়াহু ও বিংসহ বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনে কোনাে পণ্য বা সেবা বা ব্র্যান্ড খুঁজে পাওয়ার জন্য যে বিশেষ কার্যক্রম চালানাে হয়, তা-ই হলাে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (Search Engine Optimization) বা এসইও (SEO)। আমরা বুঝি কিংবা না বুঝি আমার যদি একটা ওয়েবসাইট থাকে তাহলে এটা আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আর যদি ই-কমার্স ওয়েবসাইট হয় তাহলে তাে কথাই নেই। আজকাল ফেসবুক ইউটিউবে কনটেন্ট পােস্ট করলেও কী ওয়ার্ড, ট্যাগ লাইন আর হ্যাশট্যাগ বেশ কার্যকর। এটি টেকনিক্যাল ও দীর্ঘমেয়াদি একটি প্রক্রিয়া। সরাসরি সেল না হলেও অনলাইন মার্কেটিংয়ের ভিত্তিকে মজবুত করে এই প্রক্রিয়া এবং তা থেকে যেমন ব্র্যান্ডিং ও প্রমােশন হয় তেমনি একপর্যায়ে এটা বিক্রির হারকেও প্রভাবিত করে। এখানে টেকনােলজিটাই মুখ্য।

লেখা: জাহাঙ্গীর আলম শোভন

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top